অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস করার ৬টি সুবিধা জানুন

অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস

অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস করার ৬টি সুবিধা জানুন

ডিজিটাল শিক্ষার প্রসার ঘটায় বর্তমানে অনলাইনের শিক্ষাটা অনেক বেড়েছে। বিশেষ করে ২০২০ সাল থেকে করোনার কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের কারণে অনেকটাই বেশি ব্যবহার বেড়েছে অনলাইন ক্লাসের।

অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস করার ৬টি সুবিধা জানুন

 

করোনার কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্টান বা দেশের শিক্ষাখাতগুলো। বিগত সময়গুলোতে অন্যন্য প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা গেলেও করোনার কারণে শিক্ষা প্রতিষ্টানগুলো বন্ধই রাখা হয়েছে। 
 
করোনার কারণেই বলবো, অনলাইনের শিক্ষার বা অনলাইন ক্লাসের ব্যপক প্রচার ও প্রসার ঘটেছে বিগত সময় গুলো। 
 
হয়তো এই পরিবর্তন নিয়ে আসতে আরও ৫-১০ বছর সময় লাগতো যা করোনা মহামারির কারণে সামান্য সময়েই সম্ভব হয়েছে। 
 

অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস করার ৬টি সুবিধা

 

 

স্কুল কলেজ বন্ধের কারণে বিভিন্ন স্কুলগুলো অনলাইনে ক্লাস নিচ্ছে। কিন্তু অনেক ছাত্র-ছাত্রী এ ধরনের ক্লাসে সাচ্ছন্দ্যবোধ করছে না।

 

অথচ অনলাইন ক্লাস ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য অত্যন্ত সুবিধাজনক। আপনি শুনে অবাক হবেন ভরতে ৭৯% ছাত্র-ছাত্রী অনলাইনে ক্লাস করছে।

 

বিভিন্ন সোসিয়াল মিডিয়াতে তারা ক্লাসগুলো করছে, যেমন ফেসবুক, ইউটিউব, ইউয়াট আপ, ইত্যাদি।

 

অনেক ছাত্র-ছাত্রীরা অনলাইনে ক্লাস করতে চায় না, এজন্য এই প্রতিবেদনটি তাদের জন্য। অবশ্যই পুরো প্রতিবেদনটি পড়ার জন্য অনুরোধ থাকবে।

 

অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস করার ৬টি সুবিধা

 

 

১. অনলাইন ক্লাসে স্বশরীরে উপস্থিতি বাদ্ধতামূলক নয় 

 

শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের স্বশরীরে উপস্থিতি ছাড়া একাডেমি ক্লাসের সঙ্গে অনলাইন ক্লাসের তেমন কোনো পার্থক্য নেই।

 

বরং একাডেমি ক্লাসের থেকে অনলাইন ক্লাসের সুবিধাই বেশি। অর্থাৎ অনলাইন ক্লাসে স্বশরীরে উপস্থিত থাকতে হয় না। 

 

২. লেকচার নোট করার ঝামেলা নেই

 

অনলাইনে ক্লাস করা আরেকটি সুবিধা হলো শিক্ষকের লেকচার নোট করা ঝামেলা থাকে না।

 

অর্থাৎ শিক্ষক কি বলছেন বা কি লিখতে হবে সেগুলো লিখে রাখাও তেমন প্রয়োজন হয় না।

 

যেহেতু ক্লাসগুলো অনলাইনে জমা থাকে সেহেতু লেকচার নোট করার ঝামেলা নেই। অপরদিকে একাডেমি ক্লাসে একটি নির্দিষ্ট সময়ে ক্লাসে উপস্থিত হয়ে শিক্ষকের লেকচার গুলো নোট করতে হয়।

 

একজন ছাত্র-ছাত্রী অনলাইনে চাইলেই ক্লাসের লেকচাগুলো নোট করে রাখতে পারে অথবা পরবর্তীতে ইন্টারনেট থেকে লেকচারগুলো নোট করে নিতে পারে।

 

৩. যেকোনো জায়গা থেকে ক্লাসে উপস্থিত হওয়া যায়

 

তৃতীয় যে সুবিধাটি সেটা হলো যেকোনো জায়গা থেকে যেকোনো অবস্থাতেই অনলাইন ক্লাসে উপস্থিত হওয়া যায়।

 

অর্থাৎ আপনি যদি কোনো স্থানে বেড়াতে যান তাহলে আপনি সেখান থেকেও অনলাইন ক্লাসে উপস্থিত হতে পারবেন। 

 

৪. অনলাইনে বিভিন্ন ভাবে ক্লাস বোঝানো হয়

 

একাডেমি ক্লাসে ব্লকবোর্ডে ক্লাস বোঝানো হয় আর অনলাইন ক্লাসে বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মাধ্যমে পড়া বা লেকচারগুলো বোঝানো হয়।

 

এটি অত্যন্ত সুবিধাজনক, একাডেমি ক্লাসগুলোতে যা সম্ভব হয় না।

 

এছাড়াও যে বিষয়ে ক্লাস করানো হয় সেই বিষয়ে বিভিন্ন টিউটিরিয়াল ইউটিউবে ছাড়া হয়।

 

সেখান থেকে টিউটিরিয়ালগুলো দেখে নিয়ে অনলাইন ক্লাসের সুবিধা পাওয়া যায়। আর ক্লাসগুলো বুঝতেও অনেক সহজ হয়ে যায়। 

 

৫. লেকচারগুলো পনরাই বুঝা সম্ভব হয়

 

কোনো কারণে যদি কেউ লেকচারগুলো না বুঝতে পারে তাহলে সেটি পুনরাই বুঝতে পাড়া যায়।

 

একাডেমি ক্লাসে একদিন উপস্থিত না হলে ওই দিনের লেখচার আর বুঝা সম্ভব নয়। কিন্তু অনলােইন ক্লাসে এ সুবিধাটি আছে।

 

যদি একদিন ক্লাসে উপস্থিত না হতে পারি তাহলে ওই ক্লাসটি পুনরাই ইউটিউবে বা সোসিয়াল মিডিয়াতে পাওয়া যায়।

 

এটি আমাদের জন্য অনেক সুবিধাজনক এবং শিক্ষা গ্রহণের একটি জনপ্রিয় মাধ্যম। 

 

৬. অনলাইন ক্লাস বারবার করা যায়

 

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা অনেক দূর্বল ছাত্র। তাদের জন্য অনলাইনে ক্লাসগুলো অনেক সুবিজনক।

 

যদি ক্লাসে শিক্ষকের বিষয়গুলো না বুঝে তাহলে পুনরাই সেই ক্লাস করতে পারবে।

 

একাডেমি ক্লাসগুলোতে ভালো ছাত্র-ছাত্রীরা শিক্ষকের বিষয়গুলো বুঝার কারণে দ্রুত সামনে এগিয়ে যায় কিন্তু দূর্বর ছাত্র-ছাত্রীরা এগোতে পারে না।

 

কিন্তু অনলাইন ক্লাসে যদি শিক্ষকের বিষয়গুলো না বুঝে তাহলে বাবার ভিডিওগুলো দেখে সেটা বুঝে নিতে পারে। আর এটি হলো অনলাইন ক্লাসের সুবিধা গুলোর মধ্যে একটি।  

 

শেষ কথা 

 

আশা করবো যারা অনলাইনে ক্লাস করতে ভয় পায় বা ক্লাস করতে চায় না তারা বিষয়টি বুঝতে পারছেন।

 

তো এই ছিলো অনলাইনে ক্লাস করার কয়েকটি সুবিধা। প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং আপনার কোনো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে জানার থাকলেও বলবেন।

 

আমরা চেষ্টা করবো আপনাকে সেই বিষয়ে জানানোর জন্য। আপনাকে অসখ্য অন্যবাদ আপনার মূল্যবান সময় ব্যয় করার জন্য, আশা করি আমাদের সাথেই থাকবেন। 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *