বর্তমানে শহরে ব্যচেলরদের ৫টি অসুবিধা জেনে নিন

শহরে ব্যচেলরদের থাকা ও খাওয়ার ৫টি অসুবিধা

ঢাকা শহর বাংলাদেশের রাজধানী শহর। এখানে প্রতিদিনই অনেক বেশি মানুষ বসবাস করার জন্য দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এসে থাকে। শহরে ব্যচেলর দের থাকা ও খাওয়ার অনেক বেশি অসুবিধা বর্তমানে। 

শহরে ব্যচেলরদের থাকা ও খাওয়ার ৫টি অসুবিধা

ব্যচেলর কাদেরকে বলা হয় ?

শহরে পরিবারের বাইরে থেকে যারা বসবাস করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। এবং শহরে বিভিন্ন কাজের জন্য এসে যারা পরিবার ছাড়া থাকে তাদেরকেই মূলত ব্যচেলর বলা হয়ে থাকে। 

অনেকেই পড়াশোন বা কাজের জন্য পরিবার ছেড়ে শহরে আসে। এরকম হাজার হাজার মানুষ শহরে রয়েছে যাদের বাসস্থান ব্যাচেলার মেচে। 

ব্যাচেলার জীবন মানেই অন্যরকম কিছু। শহরে ব্যাচেলাদের থাকা-খাওয়া খুবই অসুবিধার। আর তাই শহরে ব্যাচেলারদের অসুবিধা নিয়ে আজকের প্রতিবেদন।

১. ঠিক মতো বিশ্রামের অসুবিধা

শহরে ব্যাচেলরদের এই একটি সমস্যা  তারা ঠিক মতো বিশ্রাম নিতে পারে না। কাজ বা পড়াশোনার চাপে সারাদিন বাইরে থাকার পর বাসায় যখন আসে তখন খাবার নিয়ে সমস্যায় পড়তে হয়।  

এমনকি অনেক সময় নিজেদেরই রান্না করতে হয় আর এজন্য ঠিক মতো বিশ্রাম নিতে পারে না। ঠিক মতো বিশ্রাম না দেওয়ার কারণে শরীরে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। 

২. খাবার-দাবারের অসুবিধা

সাধারণত ব্যাচেলরা হোটেল বা মেচে খাবার খেয়ে থাকে। তাই সেখানে যে খাবার দেয় সেই খাবারই খেতে হয়। এজন্য অনেক সময় নিজেদের পছন্দের খাবার খেতে পারে না। 

বাইরের খাবার গুলোর টেস্ট কখনোই ভালো হয় না। বাইরের খাবার যেমন স্বাস্থের জন্য ক্ষতিকর তেমন ঝুকিপূর্ণ এবং শরীরে নানা ধরনের অসুখও হতে পারে।তাই খাওয়া-দাওয়া নিয়ে ব্যাচলরদের অসুবিধার ভেতরে পড়তে হয়। 

৩. বাড়ি ভাড়া নিয়ে অসুবিধায় পড়তে হয়

শহরে ব্যাচলরদের কেউ বাড়ি ভাড়া দিতে চাই না। এজন্য তাদের অনেক সময় অসুবিধার সম্মুখিন হতে হয়। 

বাড়ি ভাড়া না পাওয়ার কারণে অনেক সময় ম্যাচে থাকতে হয়। ম্যাচে থাকতে হলে অনেক মানুষ মিলে এক সাথে থাকতে হয় যা অনেকেই পক্ষেই সম্ভব হয় না। 

৪. নিজের মতো করে চলতে পারে না

বর্তমানে শহরে ব্যাচেলররা নিজের মতো করে চলতে পারে না। অনেক মানুষ এক সঙ্গে থাকায় কেউ কারো সখ পুরণ করতে পারে না। 

ভালো থাকতে হলে অথবা নিজের মতো করে চলতে হলে নিজেকে সময় দিতে হয় আর ব্যাচেলরদের পক্ষে নিজেকে সময় দেওয়ায় সম্ভব হয় না। আর সমস্যাটাই ব্যাচেলারদের হয়ে থাকে। 

৫. স্বাস্থের ঝুঁকি 

শহরে ব্যাচেলরদের স্বাস্থের ঝুঁকি থাকে বেশি। কারণ তারা সবসময় বাইরের খাবার খায় এবং সেই খাবার গুলো অনেক সময় টাটকা থাকে না। ফলে তাদের স্বাস্থের ঝুঁকি বেড়ে যায়। 

গবেষণায় দেখা গেছে স্বাস্থ নিয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে এমন ব্যক্তিদের মধ্যে ব্যাচেলররা এগিয়ে আছে। আর বর্তমানে শহরে ব্যাচেলরদের সংখ্যাই বেশি দেখা যায়। 

কিছু পরামর্শ

উপরের কয়েকটি অসুবিধা ছাড়াও অনেক ধরনের অসুবিধায় পড়তে হয় ব্যাচেলরদের। এই প্রতিবেদনটির সাথে আপনা মিল থেকে থাকলে এবং আপনি যদি ব্যাচেলর হন তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *