বাস টপোলজির ৫টি সুবিধা জেনে নিন

বাস টপোলজির ৫টি সুবিধা জেনে নিন

নেটওয়ার্ক ভালো করার জন্য নানা রকম পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তেমনি একটি পদ্ধতির নাম হলো বাস টপোলজি। এই পদ্ধতির মাধ্যমে নেটওয়ার্ক সংযুক্ত করা হয়। 

বাস টপোলজির ৫টি সুবিধা জেনে নিন

বাস টপোলজি কাকে বলা হয় ? 

একটি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে অনেকগুলো নেটওয়ার্ক সংযুক্ত করার পদ্ধতিকেই মূলত বাস টপোলজি বলা হয়। 

এখানে একটি মাত্র সংযোগ লাইন থাকবে এবং তার পাস দিয়ে অন্যন্যা কম্পিউটারে সংযোগ স্থাপন করা হবে। 

আজকের আর্টিকেলের আলোচ্য বিষয় হলো বাস টপোলজির ৫টি সুবিধা। আজকের আমি এই আর্টিকেলের মাধ্যমে এই টপোলজি বা এই নেটওয়াক ব্যবহার করার কি কি সুবিধা তা দেখানো হবে ইনশাআল্লাহ। 

১. সহজেই নেটওয়ার্ক আলাদা করা যায়

অনেক সময় আমাদের এমন প্রয়োজন হয় যে, একটি মাত্র নির্দিস্ট কমপিউটারের নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দেবো। তাহলে আমরা যদি শুধুমাত্র সেই কমপিউটারের সংযোগটা বন্ধ করে দেই তাহলেই তা বন্ধ হয়ে যাবে। 

২. খরচ কম হয় 

সবচেয়ে বলবো না তবে অনেক কম খরচ হয় বাস টপোলজিতে। একটা মেইন লাইন থেকে সাব লাইনের মত করে নেটওয়ার্ক সংযুক্ত করা হয় বলে এই নেটওয়ার্ক সেটআপ করতে অনেক কম খরচ হয়। 

আর এই নেটওয়ার্ক স্থাপন করার জন্য আপনাকে অবশ্যই বড় মানের ও ভালো মানের সংযোগ তার স্থাপন করে নিতে হবে। 

অনেক সময় একটা কমপিউটারের নেটওয়ার্ক বন্ধ হয়ে গেলেও এই নেটওয়ার্ক বন্ধ হয় না বিধায় এটি ব্যবহার করা অনেক নিরাপদ। 

অনেক সময় আমাদের দেশের অফিস বা ছোট ছোট ট্রেইনিং সেন্টারগুলোতে এই টপোলজি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

৩. সম্প্রসারণ করা অনেক সহজ 

আমি যদি বর্তমানে যেই দূরত্ব আছে তা আরও বাড়াতে চায় তাহলে অবশ্যই এই নেটওয়ার্ক বা বাস টপোলজি ব্যবহার করতে পারবো। 

আসলে নেটওয়ার্ক তো কোন না কোন এক সময় সম্প্রসারণ করার প্রয়োজন হবেই হবে। 

আর আগে থেকেই যদি প্রিপারেশান নেওয়া থাকে তাহলে কাজটা অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে। 

৪. রিপিটারের মাধ্যমে দূরত্ব বাড়ানো যায় 

আগে রিপিটার কি সেটা জেনে নেওয়া যাক। রিপিটার হলো এমন একটি যন্ত্র না দিয়ে আপনি ইন্টারনেটের গতি বাড়াতে পারবেন 

এবং সংযুক্ত করতে পারবেন। আসলে বাস টপোলজিতে এই রিপিটার ব্যবহার করার অন্যতম কাজ হলো এই টপোলজিতে।

আমি যদি আরও লাইন সংযুক্ত করতে চায় আর যদি ইন্টারনেট গতি ঠিক থাকে তাহলেই দূরত্ব বাড়ানো সম্ভব হবে। 

৫. বাড়তি সংযোগ করা যায় 

আপনি যদি বাড়তি সংযোগ দিতে চান তাহলে আপনি অবশ্যই এই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে অনেক সহজেই দিতে পারবেন। 

অন্যন্যা টপোলজিতে এই সুবিধাটা দেওয়া হয় না। আসলে বাড়তি সংযোগ দিতে অন্যন্যা নেটওয়ার্ক ্এ অনেকটাই ব্যয়বহুল। 

কিন্তু বাস টপোলজিতে এই কাজটা অনেক সহজেই করতে পারা যায়। আসলে এখানে এই সুবিধার জন্যও অনেক সময় এই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে থাকে। 
উপরোক্ত ৫টি সুবিধা ছাড়াও আরও নানা রকম নেটওয়ার্ক সুবিধা পাওয়া যায় এই নেটওয়ার্ক টপোলজিতে। 

আমরা অনেক সময় নেটওয়ার্ক এর বিষয়ে পরিপূর্ণ দক্ষতা লাভ করি না বিধায় এই বিষয়গুলোতে এতটা বেশি দক্ষতা অর্জন করতে পারি না। 

আশা করবো উপরোক্ত বিষয়টা অনেক ভালো মত বুঝতে পেরেছেন। অনেক ধন্যবাদ মূল্যবান সময় দিয়ে কনটেন্টটি পড়ার জন্য। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *